২৩ অক্টোবর, ২০২১ | ৭ কার্তিক, ১৪২৮

স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বিএনপির সমর্থিতরা

লামায় নৌকায় মনোনয়ন চেয়েছেন ৩৬ জন

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক, লামা

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে লামা উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন চেয়েছেন ৩৬ জন। তার মধ্যে এক ইউনিয়ন থেকেই নৌকা প্রতীক নিয়ে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ১২ জন। উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ জানিয়েছেন ৭ ইউনিয়নের একাধিক ইউনিয়নে মনোনয়ন পেতে পারেন নতুন মুখ।

এদিকে, আসন্ন নির্বাচনে বিএনপি দলীয়ভাবে অংশ গ্রহন না করলেও স্বতন্ত্রভাবে একাধিক প্রার্থী নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা গেছে। উপজেলা বিএনপির নীতি নির্ধারকরা জানিয়েছেন দলীয় সিদ্ধান্ত উপক্ষো করে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করলে তাদেরকে দল থেকে বহিস্কার করা হবে।

লামা উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন,২১ এর রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, দ্বিতীয় ধাপে লামা উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন, যথাক্রমে- গজালিয়া, লামা, ফাঁসিয়াখালী, আজিজনগর, সরই রুপসী পাড়া ও ফাইতং ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ঘোষিত তফসীল অনুযায়ী আগামী ১৭ অক্টোবর রিটার্ণিং অফিসারের কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ তারিখ। ২০ অক্টোবর রিটার্ণিং অফিসার কর্তৃক মনোনয়ন পত্র বাছাই, ২৬ অক্টোবর প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ এবং আগামী ১১ অক্টোবর ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে।

নির্বাচনের তফসীল ঘোষনার পর পরই সর্বত্রই নির্বাচনী আলোচনা শুরু হয়। তৎপর হয়ে উঠে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীগণ। ইতিমধ্যে বিএনপি দলীয়ভাবে নির্বাচনে অংশ নিবেনা ঘোষনা দেয়ায় দু’একজন স্বতন্ত্র প্রার্থী ব্যতিত অন্যদের তেমন তৎপরতা চোখে না পড়লেও আওমালীগ সমর্থিত সম্ভাব্য চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীগণ বেশ তৎপর। নৌকা প্রতীকের দলীয় মনোনয়নের প্রত্যাশায় তারা ধারস্থ হচ্ছেন উর্ধ্বতন নেতাদের কাছে। অব্যাহত রেখেছেন চেষ্টা তদবীর।

লামা উপজেলা আওয়ামীলীগের দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে উপজেলার ৭ ইউনিয়ন থেকে নৌকা প্রতীকে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে চেয়েছেন ৩৬ জন প্রার্থী। তার মধ্যে ১ নং গজালিয়া ইউনিয়ন থেকে ২ জন। সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন- বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বাথোয়াইচিং মার্মা ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক উসুইঞোয়াই মার্মা । ২নং লামা ইউনিয়ন থেকে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছেন ৫ জন। তারা হলেন- বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক মিন্টু কুমার সেন, সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আক্তার কামাল, উপজেলা আওয়ামীলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্ত বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ আব্বাস উদ্দিন এবং পৌর কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক সুলতান মাহমুদ।

৩নং ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ৫ জন। তারা হলেন- ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ নুরুল হোসাইন, সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ হোছাইন মানুন, ইয়াংছা ইউনিট যুবলীগের আহবায়ক আবু ওমর, সদস্য সচিব বর্তমান ইউপি সদস্য মোঃ শহিদুজ্জামান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কুতুব উদ্দিন।

৪ নং আজিজনগর ইউনিয়ন পরিষদ থেকে নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছেন ১২ জন। তারা হলেন- বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক মোঃ জসিম উদ্দিন, মোঃ আবু বক্কর ছিদ্দিক, মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, মোঃ সেলিম রেজা, কুলসুমা বেগম, মোক্তার হোসেন, মোঃ আবু ছালেহ, একরামুল হক বাবুল, মোঃ কামরুল ইসলাম কানন, মোঃ নুরুল আলম, মোহাম্মদ উল্লাহ আজম খান ও রফিক আহমদ চৌধুরী।

৫নং সরই ইউনিয়ন থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ৪ জন। তারা হলেন- উপজেলা আওয়ামীলীগের কৃষি ও সমবায় সম্পাদক মোহাম্মদ ইদ্রিছ, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি মোঃ নুরুল আলম, সাধারন সম্পাদক দূর্যোধন ত্রিপুরা ও যুগ্ম সম্পাদক আল আমিন।

৬ নং রুপসী পাড়া ইউনিয়ন থেকে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন চেয়েছেন ৪ জন। তারা হলেন- বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক ছাচিং প্রু মার্মা, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি মোঃ সাখাওয়াত হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য বিশ্বজিত বড়ুয়া এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুর শুক্কুর।

৭ নং ফাইতং ইউনিয়ন থেকে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ৪ জন। তারা হলেন- বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলগের সহ সভাপতি জালাল উদ্দিন, সভাপতি মোঃ হেলাল উদ্দিন, সাধারন সম্পাদক মোঃ ওমর ফারুক ও সংগঠনিক সম্পাদক আহসান উল্লাহ্ ।

লামা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বাথোয়াইচিং মার্মা বলেন, আসন্ন নির্বাচনকে ঘিরে ইউনিয়ন কমিটি ও উপজেলা কার্যনির্বাহী কমটিরি সিদ্ধান্ত মোতাবেক দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের তালিকা আমরা জেলায় প্রেরণ করেছি। জেলায় সকল সম্ভাব্য প্রার্থীকে নিয়ে বৈঠক হয়েছে। সেখানে তাদের মতামত নেয়া হয়েছে। পরবর্তীতে জেলা আওয়ামীলীগ পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপির সাথে পরামর্শ করে সম্ভাব্য প্রার্থীদের নামের তালিকা কেন্দ্রে প্রেরন করবেন। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি ও মাননীয় প্রধান মন্ত্রী চুড়ান্ত মনোনয়ন দিবেন।

আলাপকালে তিনি আরো জানান, উপজেলার ৭ ইউনিয়নের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী তালিকায় একাধিক নতুন মুখ মনোনয়ন পাওয়ার সম্ভাবনা আছে।

উল্লেখ্য, গত ইউপি নির্বাচনে উপজেলার ৭ ইউনিয়নের মধ্যে ৫ টিতে আওয়ামীলীগ ও ২ টিতে বিএনপি মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী জয় লাভ করেন।

বিজ্ঞাপন

ট্যাগ :